খাদ্যে ভেজাল মেশালে জরিমানার পাশাপাশি কারাদন্ড প্রদান করা হবে : মেয়র সাঈদ খোকন

SHARE

খাদ্যে ভেজাল প্রমাণিত হলে জরিমানার পাশাপাশি কারাদন্ড প্রদানের নির্দেশ দিয়েছেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের (ডিএসসিসি) মেযর মোহাম্মদ সাঈদ খোকন।
আজ রোববার সকালে ধানমন্ডি এলাকায় ডিএসসিসির পক্ষ থেকে খাদ্যে ভেজাল বিরোধী স্পেশাল ক্রাশ প্রোগ্রামের উদ্বোধনকালে গণমাধ্যম কর্মীদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।
সাঈদ খোকন বলেন, খাদ্যে ভেজালবিরোধী অভিযান অব্যাহত রয়েছে। আমরা বিভিন্ন সময় জরিমানা করলেও ভেজাল বন্ধ করতে সক্ষম হইনি। তাই আমরা কঠোর সিদ্ধান্ত নিয়েছি, এখন থেকে খাদ্যে ভেজাল প্রমাণিত বা প্রতীয়মান হলে জেলে পাঠানোর ব্যবস্থা করবো, সেটা প্রতীকী হলেও করবো।
এসময় মেয়রের সাথে কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শেখ মো. সালাহউদ্দিনসহ অন্যান্য ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।
মেয়র সাঈদ আরও বলেন, খাদ্যে ভেজাল প্রতিরোধে বিভিন্ন সংস্থা অভিযানে নেমেছে। আমরাও নিয়মিত কাজ অব্যাহত রেখেছি। এরপরেও ভেজাল বন্ধ হয়নি। তাই আজ থেকে কঠোর সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছি।
‘এখন কোনো প্রতিষ্ঠানের খাবারে ভেজাল প্রমাণিত হলে তাকে জেলা পঠানো হবে। সেটা অল্প সময়ের জন্য হলেও তাকে জেলে যেতে হবে’ উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, সবার জন্য নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করতে আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে।
পরে ধানমন্ডির বিভিন্ন খাবারের দোকানে ঢুকে খাবারের মান যাচাই করেন তিনি। এসময় স্টার কাবাবের দোকানে খাবারের মান যাচাই শেষে ঐ প্রতিষ্ঠান কে ৩৯ ধারায পাচ হাজার টাকা, সাত মসজিদ রোডে অবস্থিত সুলতান ডাইনে নিরাপদ খাদ্য আইনের ৪১ ধারায এক লক্ষ টাকা এবং বিবি কিউকে ৩ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।