একাদশ সংসদ নির্বাচনে আপিলে প্রার্থিতা ফিরে পেলেন যারা

SHARE

একাদশ সংসদ নির্বাচনে রিটার্নিং কর্মকর্তার যাচাই-বাছাইয়ে বাতিল হওয়া মনোনয়নপত্রের ওপর শুনানি শুরু করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদার নেতৃত্বে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে নির্বাচন কমিশনের অস্থায়ী এজলাসে এ শুনানি চলছে।

সকালে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-১ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী নবাব মো. শামছুল হুদার মাধ্যমে শুনানি শুরু হয়। আপিলেও তার মনোনয়নপত্র বাতিল হয়।

এরপর আপিল আবেদনের সিরিয়াল অনুযায়ী একে একে প্রার্থীদের শুনানি গ্রহণ করা হচ্ছে।

বগুড়া-৭ আসনে বিএনপি প্রার্থী মোরশেদ মিল্টন ও পটুয়াখালী-৩ আসনে বিএনপি প্রার্থী গোলাম মওলা রনির মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে।

আরও যাদের মনোনয়নপত্র বৈধ ঘোষণা করা হয়েছে- ঢাকা-২০ আসনে বিএনপির মো. তমিজ উদ্দিন, সাতক্ষীরা-২ আসনে জেএসডি মনোনীত প্রার্থী আফসার আলী, কিশোরগঞ্জ-২ আসনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মেজর (অব.) আখতারুজ্জামান, ঝিনাইদহ-২ আসনে বিএনপি প্রার্থী আব্দুল মজিদ, ঢাকা-১ আসনে বিএনপি প্রার্থী খন্দকার আবু আশফাক, গাজীপুর-২ আসনে জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী জয়নাল আবেদীন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৬ আসনে জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী জেসমিন নূর বেবী, রংপুর-৪ আসনে জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী মোস্তফা সেলিম বেঙ্গল।

আরও মনোনয়ন ফিরে পেয়েছেন- মানিকগঞ্জ-২ আসনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী সিংগাইর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবিদুর রহমান রোমান, গাজীপুর-২ আসনে জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী মো. মাহবুব আলম ও মো. জয়নাল আবেদীন, খুলনা-৬ আসনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী জেলা বিএনপির সভাপতি এস এম শফিকুল আলম মনা, হবিগঞ্জ-১ আসনে ইসলামী ফ্রন্টের জুবায়ের আহমেদ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ আসনে জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী আবদুল্লাহ আল হেলাল, কুড়িগ্রাম-৪ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী ইউনুছ আলী, ঢাকা-৫ আসনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মো. সেলিম ভূঁইয়া, ঝিনাইদহ-৩ আসনে জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী কামরুজ্জামান স্বাধীন, কুমিল্লা-৩ আসনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী কে এম মুজিবুল হক, মানিকগঞ্জ-১ আসনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মো. তোজাম্মেল হক, সিলেট-৫ আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী জামায়াত নেতা ফয়জুল মুনীর চৌধুরী, ময়মনসিংহ-৩ আসনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আহাম্মদ তায়েবুর রহমান, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩ আসনে ইসলামী আন্দোলনের সৈয়দ আনোয়ার আহম্মদ লিটন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫ আসনে জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী মামুনুর রশিদ, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী আবু আসিফ, ঢাকা-১৪ আসনে জাকের পার্টির জাকির হোসেন, পঞ্চগড়-২ আসনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী ফরহাদ হোসেন ও মানিকগঞ্জ-৩ আসনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী মো. আতাউর রহমান।

আপিলে যাদের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে- ফেনী-১ এর মিজানুর রহমানের মনোনয়নপত্র, কিশোরগঞ্জ-৩ আসনের ড. মিজানুুল হকের মনোনয়নপত্র, ময়মনসিংহ-৪ আসনের আবু সাইদ মহিউদ্দিনের মনোনয়নপত্র, ময়মনসিংহ-২ আসনে মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে মো. এমদাদুল হকের, খুলনা-২ ও নাটোর-১ আসনের এস এম এরশাদুজ্জামান ও শ্রী বীরেন্দ্র নাথ সাহার মনোনয়নপত্র, ঢাকা-১ ও বগুড়া-৩ আসনের মো. আইয়ুব খান ও মো. আব্দুল মুহিতের মনোনয়নপত্র, আশরাফুল হোসেন আলম ওরফে হিরো আলম বগুড়া-৪ আসন, হবিগঞ্জ-২, ঢাকা-১৪, সাতক্ষীরা-১ আসনের এস এম মুজিবুর রহমানের মনোনয়নপত্র।

আপিলের ক্রমিক নম্বর ১ থেকে ১৬০ নম্বর পর্যন্ত আজ বৃহস্পতিবার শুনানি হবে। শুক্রবার ১৬১ থেকে ৩১০ নম্বর পর্যন্ত আপিল শুনানি হবে। শেষ দিন শনিবার বাকি সব আবেদন শোনা হবে।

শুনানির জন্য নির্দিষ্ট কোনো সময় নেই। যতক্ষণ সময় লাগছে শুনানি ততক্ষণ হচ্ছে। আপিলের সঙ্গে সঙ্গে তাৎক্ষণিক রায়ও দেওয়া হচ্ছে।