জনগণকে সঙ্গে নিয়ে ভোটকেন্দ্রে আসতে হবে: ফখরুল

SHARE

নির্বাচনে সব অস্ত্র নিয়ে মাঠে নামার আহ্বান জানিয়ে নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সেই অস্ত্র হলো ভোটের অস্ত্র। প্রতিরোধের দেয়াল তৈরির বিকল্প নেই। জনগণকে সঙ্গে নিয়ে ভোটকেন্দ্রে আসতে হবে। জনগণের শক্তি দিয়ে অবাধ নির্বাচন দিতে বাধ্য করতে হবে। প্রতিরোধ তৈরি করতে হবে। এটা বাঁচা-মরার সংগ্রাম। আপনারা পালিয়ে না বেরিয়ে গ্রামে যান। নির্বাচনে যাওয়া আন্দোলনের অংশ।

মঙ্গলবার বিকেলে সুপ্রিমকোর্ট অডিটোরিয়ামে তারেক রহমানের ৫৪তম জন্মদিন উপলক্ষে বিএনপি আয়োজিত অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

মির্জা ফখরুল বলেন, নির্বাচনের দিন শেষ রক্তবিন্দু দিয়ে লড়াই করব। বুকে বুক বেঁধে লড়াই করব। ৩০ ডিসেম্বরের পর থেকে দেশে স্বাধীন মানুষের পতাকা উড়বে।

সরকার প্রচণ্ড ভয় পেয়ে ইন্টারনেট, স্কাইপ বন্ধ করেছে মন্তব্য করে বিএনপি মহাসচিব প্রশ্ন রেখে বলেন, কতটুকু দেউলিয়া হলে তারা আমাদের প্রতীক ধানের শীষ নিয়ে রিট করে।

বিএনপি মহাসচিব আরো বলেন, তারেক রহমান নেতা-কর্মীদের বলেছেন, নির্বাচনের দিনকে বিপ্লবের দিনে পরিণত করতে। নেতাকর্মীরাও ওয়াদা দিয়েছেন, সর্বশক্তি দিয়ে আমরা লড়াই করব। এই নির্বাচনের মাধ্যমেই তারেক রহমানকে ফিরিয়ে আনতে হবে। আমরা খুব কঠিন সময়ে আছি। ব্যারিস্টার রফিকুল ইসলাম মিয়াকে তিন বছরের দণ্ড দিয়েছে। আমরা দশ বছর ধরে চেষ্টা করছি। শেষ চেষ্টা ৩০ ডিসেম্বর।