ভারতে আদালতের কার্যক্রম লাইভ সম্প্রচারের অনুমতি

SHARE

মামলা চলাকালে আদালতের কার্যক্রম সরাসরি সম্প্রচারের অনুমতি দিয়েছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

বুধবার এই রায় দিতে গিয়ে সুপ্রিম কোর্ট বলেন, ‘সংক্রমণ রোধে সূর্যকিরণই শ্রেষ্ঠ।’ একই সঙ্গে প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র নেতৃত্বাধীন ডিভিশন বেঞ্চ জানিয়েছে, বিচারব্যবস্থায় স্বচ্ছতা আনতে এই নতুন ব্যবস্থা কার্যকর হবে। যদিও সাধারণ মানুষের অধিকার এবং অভিযুক্ত মানুষদের মর্যাদা, এই দু’টি বিষয়ের মধ্যে প্রয়োজনীয় ভারসাম্য রাখতে সুনির্দিষ্ট নীতি তৈরি করা দরকার বলেও জানিয়েছে শীর্ষ আদালত।

বিচারব্যবস্থায় স্বচ্ছতা আনতে যোধপুরের জাতীয় আইন বিশ্ববিদ্যালয়ের একছাত্র প্রথম ‘সরাসরি সম্প্রচার’ বা ‘লাইভ টেলিকাস্ট’ করার আবেদন রাখেন আদালতের কাছে। সেই জন্য শীর্ষ আদালতে ক্যামেরা বসানোর কথাও জানানো হয়েছিল আবেদনে।

প্রাথমিক ভাবে ঠিক করা হয়েছে, প্রথমে পরীক্ষামূলকভাবে প্রধান বিচারপতির এজলাসে সাংবিধানিক মামলাগুলিকে আনা হবে সরাসরি সম্প্রচারের আওতায়। সে পরীক্ষা কতটা সফল হচ্ছে, তা দেখেই ঠিক করা হবে, দেশের অন্যান্য আদালতেও সরাসরি সম্প্রচার চালু করা হবে কিনা।

যদিও সরাসরি সম্প্রচার অন্তত ৭০ সেকেন্ড পরে করার কথা রাখা হয়েছে প্রস্তাবে। কারণ, কোনও আইনজীবী বা অভিযুক্ত কোনও অমর্যাদাকর আচরণ করলে সে ক্ষেত্রে বিচারপতি সম্প্রচার ‘মিউট’ বা বন্ধ করে দেওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় সময় পাবেন।